শীতের সকালে ঘুম থেকে উঠার কৌশল



( মডারেটর )

নভেম্বর 29, 2017

লাইফ স্টাইল

3

1,423

 

শীতকালে কি আর সহজে বিছানা ছাড়া যায়? শীত কিংবা গ্রীষ্মে সব সময়ই সূর্য ওঠার অনেক পরে বিছানা ছাড়ার অভ্যাস আছে অনেকের। ভোরে ঘুম ভাঙলে বেশ বড় একটা দিন পাওয়া যায়। অনেক কাজ করা যায়, কোনো ব্যতিব্যস্ত থাকে না। চাপ ছাড়া দিনটা শুরু হয়।

চিকিৎসক অধ্যাপক শুভাগত চৌধুরীর মতে, বছরের সব সময়ই খুব ভোরে ঘুম থেকে ওঠা জরুরি। শীতকালে জড়তা বেশি থাকে, আলস্য কাজ করে। তবু উঠতে হবে। তা না হলে অভ্যাস হয়ে যাবে। যতই কাজ থাকুক না কেন, পর্যাপ্ত ঘুম ও সকাল সকালে ঘুম থেকে ওঠার অভ্যাস করার দিকে মনোযোগ দেওয়া প্রয়োজন। কখন আমরা ঘুম থেকে উঠছি, তা কিন্তু আমাদের উদ্ভাবনী শক্তি আর কর্মস্পৃহার ওপর প্রভাব ফেলে।

ভোরে জেগে উঠতে যে বিষয়গুলো খেয়াল রাখতে পারেন—

১। ঘুমের আড়ষ্টতা কাটাতে এক কাপ চা দিয়ে শুরু করতে পারেন দিনটা। শীতের সকালে বাড়তি উষ্ণতা দেবে। আর প্রতিদিন সকাল সকাল পত্রিকার পাতা উল্টিয়ে চা পানের অভ্যাস থাকলে আপনার দিনের শুরুটা অন্য রকম হবেই।

২। পরিবারের শিশু-কিশোরদের ঘুম থেকে ভোরে উঠতে উৎসাহ দিন।

৩। সকালে ব্যায়াম কিংবা হাঁটাহাঁটি করলে জড়তা চলে যাবে। হালকা গরম পানিতে গোসল করে নিলে ফুরফুরে লাগবে। এটি করলে আপনার কাজে মনোযোগ আসবে।

৪। প্রতিদিন সকালে বাড়িতে মুঠোফোন বা কম্পিউটারে রবীন্দ্রসংগীত শুনতে শুনতে নিজের কাজ আনন্দ নিয়ে করার অভ্যাস করলে মনের উৎফুল্লতা বাড়বে।

৫।  বেশি রাত জেগে কাজ না করে সকালের জন্য কাজ গুছিয়ে রাখার অভ্যাস তৈরিতে মনোযোগ দিন।

৬। সারা দিন কী করবেন, সেই কাজের তালিকাও সকালে নাশতা খেতে খেতে করতে পারেন।

৭। ঘুমানোর সময় মুঠোফোন বিছানা থেকে দূরে রাখুন। ঘুমানোর আধা ঘণ্টা আগে মুঠোফোন, টেলিভিশন আর ল্যাপটপ ব্যবহার করবেন না।

৮। মুঠোফোনের নীল আলো আমাদের ঘুমে বিঘ্ন ঘটায়। ঘুমানোর আগে শুয়ে শুয়ে ফোনে সামাজিক যোগাযোগের সাইটগুলোতে ঘোরাঘুরি কিংবা গেমস খেলা থেকে বিরত থাকুন।

সেলিম

লেখক

Related Posts