মেধার বিকাশে পদক্ষেপ



( মডারেটর )

নভেম্বর 26, 2017

বই সমূহ

3

488

অধ্যাপক :মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ

মেধার বিকাশ ও উন্নয়নে চিকিৎসাবিজ্ঞানী ও মনোবিজ্ঞানীরা বলেন—–পুষ্টিকর খাদ্যগ্রহণ, দুশি্চান্তাহীন মন,সুস্থ দেহ ও চাহিদা পূরণের মাধ্যমে মেধার উৎকর্ষতা সম্ভব। ছাত্রদের প্রতিভা বিকাশের জন্য পড়াশোনার ফাঁকে ফাঁকে চারুকলা , সংগীত, খেলাধুলা, পাঠ্য-বহির্ভূত বই অধ্যয়ন প্রভৃতি বিষয়গুলোর দিকে মনোযোগ দিতে হবে।

প্রতিটি মানুষের ভেতরেই সৃজনশক্তি লুকিয়ে আছে। কিন্তুু সৃজনশীল প্রতিভা বলতে যা বোঝায় সেটা অন্য ব্যাপার। যেমন আলবার্ট আইনস্টাইন, পাবলো পিকাসো —- এদের সৃজনশীল প্রতিভা অতুলনীয় ও বিস্ময়কর। তবে তাঁদের সহযোগী স্রোত হিসেবে অনেকেই নিজেদের তুলে ধরতে সক্ষম হন। অনেকে লিখতে পারেন ভালো,অভিনয় করতে পারেন ভালো, অনেকে গান গাইতে পারেন,কিন্তুু এমন ভাবে পারেন না,যাতে তাকে টি.এস. ইলিয়ট,চার্লি চ্যাপলিন বা এলভিস প্রিসলি মনে করা যেতে পারে। তবে হ্যা তোমরা নিজেদের মত করে মেধাকে নির্মাণ করতে পার।এজন্য দরকার সচেতনতা।


চার্লচ ডারউইনের কথাই ধরো, যিনি জৈব বিবর্তন ও মানুষের উদ্ভব সম্পর্কে চাঞ্চল্যসৃষ্টিকারী গবেষণা তত্ত্ব উপস্থাপন করেছেন মানুষের সামনে। প্রথম জীবনে কোথাও কোন পাত্তা পান নি। হতাশার কালো ধোঁয়ায় ছেয়ে গিয়েছিল তাঁর জীবন। কিন্তুু উত্তরকালে বিরাট সম্মানের জন্য প্রস্তুুত হতে হয়েছিল তাঁকে। আর এটি তো সত্য, এরকম ব্যক্তি ছাড়া মানবপ্রগতিও সম্ভব নয়।

মেধার বিকাশে জন্মগত ও পরিবেশগত উভয় প্রভাবই গুরুত্বপূর্ণ । প্রতিটি মানুষেরই ভেতরে লুকিয়ে আছে প্রতিভা নামক শব্দটি। আর এর বিকাশের দায়িত্ব নিতে হবে তোমাদের সকলেরই। তোমরা তোমাদের ভেতরের সৃজনশীলতা প্রকাশের মাধ্যমে মেধার পরিপূর্ণ বিকাশ ঘটাতে পারো।

পরের বিষয় হচ্ছে (প্রতিভা ও পরিশ্রম)

সাথেই থাকুন

সেলিম

লেখক

Related Posts